1. alinahmed1221@gmail.com : alin ahmed : alin ahmed
  2. azizpekua6@gmail.com : Azizul Hoque : Azizul Hoque
  3. priyobartadesh@gmail.com : journalistshoaib :
  4. smmahfuj204@gmail.com : Mohammad mahfujur Rahman : Mohammad mahfujur Rahman
  5. shamimullahadil2012@gmail.com : Shamim Ullah Adil : Shamim Ullah Adil
রমজান মাস দোয়া কাবুলের মাস-পুনম মায়মুনী | প্রিয় বার্তাদেশ
বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি
ডিসিএ এগ্রো খামারে সাধারণ কর্মচারি পদে (এক জন) নিয়োগ চলছে , আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৪ ০৬৪৯৭১ সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে - আগ্রহীরা জীবন বৃত্তান্ত পাঠাতে পারেন আমাদের এই ঠিকানায় correspondent@priyobartadesh.com আপনার প্রতিষ্টানের বিজ্ঞাপন কম টাকায়  দিতে আজকেই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ০১৮১৫৬১৫৩৫৫ ( সম্পাদক )   প্রিয় বার্তদেশ পত্রিকার প্রিন্ট কপি বের হচ্ছে , শুভেচ্ছা বিজ্ঞাপন আবশ্যক আমাদের সংবাদ মেসেজে পেতে মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন start <space> priyobd লিখে পাঠিয়ে দিন 21213 এই নাম্বারে **শুধুমাত্র রবি আর এয়ারটেল নাম্বার থেকে আমাদের মোবাইল এ্যাপ গুগলে পাওয়া যাচ্ছে  সার্চ করুন priyobd 

রমজান মাস দোয়া কাবুলের মাস-পুনম মায়মুনী

মুহাম্মদ মাহফুজুর রহমান
  • প্রকাশিত বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১

পবিত্র রমজান মাস মহান আল্লাহতালার পক্ষ থেকে মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের জন্য একটি নিয়ামতের মাস। এই মাসকে আল্লাহতায়ালা অত্যন্ত মর্যাদাপূর্ণ ও বরকতপূর্ণ করেছেন। ইসলামের পাঁচ স্তম্ভের অন্যতম একটি হলো রোজা।
রোজা ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ এক অধ্যায়। ইসলামী বিধান অনুসারে প্রাপ্তবয়স্ক এবং সুস্থ প্রত্যেক মুসলমান নর-নারীর জন্য রমজান মাসে রোজা রাখা ফরজ।
রমজান শব্দের অর্থ পুড়িয়ে ফেলা। রমজান মাস দীর্ঘ মাসকালব্যাপী এই রোজা অর্থাৎ উপবাস মুসলমানের পাপ ও অকল্যাণকে পুড়িয়ে ফেলে এবং তাঁদের সংযম শিক্ষা দেয় বলে এর আরেক নাম সিয়াম বা সংযম।
রোজা মানুষের জন্য ঢালস্বরূপ। সারাদিন উপবাস করলেই রোজার পূর্ণতা হয়না বরং অন্তরের যাবতীয় মলিনতা ও কুটিলতা দূর করাই রোজার মূল উদ্দেশ্য ।তাই রোজাদারের জন্য, মিথ্যাবলা ,ঝগড়া,বিবাদ ,অশ্লীলতা,অনৈতিক সব ক্ষতিকারক অশুচি থেকে মুক্ত করে আত্মাকে পরিশুদ্ধ করাই রমজান মাসের শিক্ষা।।
এ মাসটিকে মহান আল্লাহ তাআলা যাবতীয় যুদ্ধবিগ্রহ, হানাহানি ও রক্তপাত নিষিদ্ধ করে দিয়েছেন।
রোজা জান্নাত লাভের পথ_
হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, “জান্নাতের একটি দরজা রয়েছে, যার নাম ‘রাইয়ান’ ( অর্থ তৃপ্তিদায়ক) বলা হয়। কেয়ামতের দিন রোজাদাররাই শুধু ওই দরজা দিয়ে প্রবেশ করবে। অন্য কেউ সে দরজা দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। সেদিন ঘোষণা করা হবে, রোযাদাররা কোথায়? তখন তারা দাঁড়িয়ে যাবে এবং ওই দরজা দিয়ে প্রবেশ করবে। যখন তাদের প্রবেশ শেষ হবে, তখন দরজা বন্ধ করে দেওয়া হবে। ফলে তারা ব্যতীত অন্য কেউ প্রবেশ করতে পারবে না”।
–সহিহ বোখারি, হাদিস: ১৭৯৭
রমজান মাসের আর একটি মহত্ব ও গুরুত্ব হলো এ মাসে কোরআন নাজিল হয়েছে,
“যা আদ্যোপান্ত হেদায়েত এবং সুস্পষ্ট নিদর্শনাবলী সম্বলিত; যা সঠিক পথ দেখায় এবং সত্য-মিথ্যার মধ্যে চূড়ান্ত ফায়সালা করে দেয়”।
-সূরা বাকারা: ১৮৫
রোযা এবং রমজানের সঙ্গে কোরআনের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। এ জন্যই নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম রমজান মুবারাকে কোরআন তেলাওয়াতের খুব গুরুত্ব দিতেন।
“প্রত্যেক রমজানে জিবরাঈল( আ). নবী (সাঃ) সঙ্গে মিলিত হতেন এবং পুরো কোরআন একে অপরকে শোনাতেন”।
-সহীহ বুখারী :
এ মাসে আল্লাহতাআলা এমন একটি রাত (শবে কদর )দান করেছেন, যা হাজার মাস থেকে উত্তম।
‘শবে কদর’কে পবিত্র কোরআান শরীফে ‘লাইলাতুলকদর’ অর্থাৎ ‘মহিমান্বিত রাত্রি’ রূপে বর্ণনা করা হয়েছে।
“এ রাত্রি সহস্র মাস অপেক্ষা শ্রেষ্ঠতর। এই রাত্রিতে ফেরেস্তাগণ এবং রূহ্ তাঁদের প্রতিপালকের অনুমতিক্রমে সর্ববিধ মঙ্গল সহকারে অবতীর্ণ হয়। ঊষার আবির্ভাব পর্যন্ত এ রাত্রি বর্তমান থাকে”।
৯৭(১-৫)।
“এ মাসে জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেয়া হয় এবং জাহান্নামের দরজাগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়। শয়তানকে শৃঙ্খলে আবদ্ধ করা হয়। রমজানের প্রতি রাতেই অসংখ্য মানুষকে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেওয়া হয়”।
-সুনানে তিরমিজি, হাদিস: ৬৮২
রমজান মাসের প্রত্যেক নফল ইবাদতে অন্য মাসের ফরজের সমপর্যায়ের সাওয়াব, আর প্রত্যেক ফরজ ইবাদতে অন্য মাসের সত্তর গুণ সাওয়াব। এ মাসে তওবার অনুকূল অবস্থা বিরাজ করে। পাপ মোচনের এবং আল্লাহর নৈকট্য লাভের এক সুবর্ণ সুযোগ এ রমজান মাস, এ মাস দোয়া কবুলের মাস।
মরুভূমির মাঝখানে দাঁড়ানো, যদি কোন এক ব্যক্তি তাঁর হারানো উঠ ফিরে পায় তবে সে ব্যক্তির যে অপরিমাণ আনন্দ অনুভূত হয়,
একজন তওবাকারীর জন্য আল্লাহ্ রাব্বুল আল আমিন তার চেয়ে অধীক পরিমানে আনন্দিত হোন।
গোটা পৃথিবী আজ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। আসুন আমরা সবাই এই নেয়ামতের মাসকে যথাযোগ্য মর্যাদা সহকারে পালন করি এবং এই মহামারী রোগ থেকে মুক্ত হতে, পিছনের সব পাপের জন্য অনুতপ্ত হয়ে তওবা করি, আল্লাহ্পাকের দরবারে ক্ষমা ভিক্ষা চাই। তিনি ক্ষমা করতে ভালোবাসেন । তিনি অতীব দয়ালু।

লেখক
পুনম মায়মুনী

শিশুসাহিত্যিক ও মৃৎশিল্পী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

এই পোর্টালটি  © ২০২১ প্রিয় বার্তাদেশ কতৃক সংরক্ষিত ।

 
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
error: সংবাদগুলো কপিরাইটের আওতাধীন