1. alinahmed1221@gmail.com : alin ahmed : alin ahmed
  2. azizpekua6@gmail.com : Azizul Hoque : Azizul Hoque
  3. priyobartadesh@gmail.com : journalistshoaib :
  4. smmahfuj204@gmail.com : Mohammad mahfujur Rahman : Mohammad mahfujur Rahman
  5. shamimullahadil2012@gmail.com : Shamim Ullah Adil : Shamim Ullah Adil
পেকুয়ায় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ এখন স্মার্ট ফোন দিয়ে জুয়ার আসর | প্রিয় বার্তাদেশ
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি
ডিসিএ এগ্রো খামারে সাধারণ কর্মচারি পদে (এক জন) নিয়োগ চলছে , আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন : ০১৭১৪ ০৬৪৯৭১ সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে - আগ্রহীরা জীবন বৃত্তান্ত পাঠাতে পারেন আমাদের এই ঠিকানায় correspondent@priyobartadesh.com আপনার প্রতিষ্টানের বিজ্ঞাপন কম টাকায়  দিতে আজকেই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ০১৮১৫৬১৫৩৫৫ ( সম্পাদক )   প্রিয় বার্তদেশ পত্রিকার প্রিন্ট কপি বের হচ্ছে , শুভেচ্ছা বিজ্ঞাপন আবশ্যক আমাদের সংবাদ মেসেজে পেতে মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন start <space> priyobd লিখে পাঠিয়ে দিন 21213 এই নাম্বারে **শুধুমাত্র রবি আর এয়ারটেল নাম্বার থেকে আমাদের মোবাইল এ্যাপ গুগলে পাওয়া যাচ্ছে  সার্চ করুন priyobd 

পেকুয়ায় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ এখন স্মার্ট ফোন দিয়ে জুয়ার আসর

আজিজুল হক (পেকুয়া প্রতিনিধি)
  • প্রকাশিত বুধবার, ২ জুন, ২০২১
কক্সবাজারের পেকুয়ায় এখন বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে দেখা যায় অ্যান্ড্রয়েড বা স্মাট ফোন। এসব স্মার্ট মোবাইল ফোন কেউ ভালো কাজে আবার কেউ মন্দ কাজে ব্যবহার করছে। আবার অসাধু শ্রেণীর লোকেরা স্মার্ট ফোনের অপব্যবহার করে জুয়ার আসরও বসাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।
এসব অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোন আবিস্কারের ফলে যতোটা সুবিধা হয়েছে ঠিক ততোটা অসুবিধাও বয়ে এনেছে। বর্তমান সময়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের হাতে হাতে এখন অ্যান্ড্রয়েড বা স্মাট ফোন।
এসকল ফোনে বিভিন্ন সফটওয়ার এ্যাপস এর সাহায্যে গেমস খেলা সহ নানা ধরনের শিক্ষামূলক বিভিন্ন কাজ করা যায়। সম্প্রতি লুডু নামের আরো একটি এ্যাপস খুব অল্প সময়ে অনেক বেশি পরিচিতি লাভ করেছে।
এ লুডু কাগজের তৈরী লুডুর মত সহজেই খেলা যায় বলে শিক্ষার্থীরা লুডু এ্যাপসটি ইনষ্টল করে খেলতে পারে। সহজলভ্য আর সহপাঠি নিয়ে খেলা যায় বলে বাজীতে আকৃষ্ট হচ্ছে অনেকে।
নাম বলতে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক বলেন, ক্লাসের ফাঁকে শিক্ষক/শিক্ষিকারা একটু সময় পেলেই লুডু খেলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। শুধু তাই নয় অনেক সময় শিক্ষকদের চোখ ফাঁকি দিয়ে শিক্ষার্থীরাও এই লুডু খেলায় মেতে ওঠে।
এ নেশায় শুধু শিক্ষার্থীরাই আসক্ত নয়, পেকুয়া উপজেলার গ্রামগঞ্জের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষেরাও দিনদিন আসক্ত হয়ে পড়েছে এই লুডু এ্যাপসটিতে।
জনপ্রিয় এই এ্যাপসটি ব্যবহার করে বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলের তিনমাথা মোড়ে, পুকুর পাড়ে, ব্যক্তিগত অফিসে, চায়ের দোকানসহ বিভিন্ন স্থান বেছে নিয়ে খুব সহজেই জুয়ার আসর বসাচ্ছে।
এ জুয়ার আসরে আকৃষ্ট হয়ে নিমিষেই হাজার-হাজার টাকা হারছে বাজী ধরে। গ্রামীন যুবকরা দৈনন্দিন কাজকর্ম বাদ দিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় কাটাচ্ছে এসব লুডু নামক জুয়ার আসরে।
ফলে এক দিকে অর্থ অপচয় অন্য দিকে সময় নষ্ট হচ্ছে। তবে এভাবে চলতে থাকলে যুব সময় এক সময় ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে পৌছে যাবে।
সুতরাং এসব জুয়ার বিষয়ে অতি তারাতারি সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে না হয় দিন দিন সমাজ ধ্বংসের দিকে ধাবিত হবে। বিশেষ করে যুব সমাজকে লুডু নামক জুয়া থেকে রক্ষা করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ অতি জরুরী হয়ে পড়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

এই পোর্টালটি  © ২০২১ প্রিয় বার্তাদেশ কতৃক সংরক্ষিত ।

 
কারিগরি সহযোগিতায়: ইন্টাঃ আইটি বাজার
error: সংবাদগুলো কপিরাইটের আওতাধীন